একজন এনজিও কর্মকর্তার আয় এবং কর পরিগণনা

মিসেস সালেহা জামান হক একটি NGO তে কর্মরত রয়েছেন। তিনি ২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরে নিম্নরূপ বেতন ভাতা পেয়েছেনঃ

মাসিক মূল বেতন                    = ২০,০০০/- টাকা

মাসিক বাড়ী ভাড়া ভাতা           = ১২,০০০/- টাকা

মাসিক চিকিৎসা ভাতা             = ১০০০/- টাকা

তিনি সার্বক্ষণিক ব্যবহারের জন্য অফিস হতে একটি গাড়ী পেয়েছেন। গাড়ীর ড্রাইভারের বেতন ও জ্বালানী খরচ অফিস বহন করে। তিনি প্রভিডেন্ট ফান্ডে প্রতি মাসে ২,০০০/- টাকা জমা দেন। তাঁর নিয়োগকর্তাও এ ফান্ডে সমপরিমাণ অর্থ জমা দেন। প্রভিডেন্ট ফান্ডটি অনুমোদিত নয়। তাঁর নীট সম্পদের পরিমাণ ১,৯০,০০,০০০/- টাকা।

২০১৪-২০১৪ কর বছরে মিসেস সালেহা জামান হকের মোট আয় ও করদায় নীচে বর্ণনা করা হরোঃ

বেতন খাতে আয়ঃ

মূল বেতন (২০,০০০/- * ১২) =                                                                                                      ২,৪০,০০০/-

বাড়ী ভাড়া ভাতা (১২,০০০/- * ১২) =                                                      ১,৪৪,০০০/-

বাদ কর অব্যাহতি প্রাপ্তঃ

মূল বেতনের ৫০% = ১,২০,০০০/- অথবা ২,৪০,০০০/- এর মধ্যে যেটি কম = ১,২০,০০০/-

করযোগ্য বাড়ী ভাড়া ভাতা=                     ২৪,০০০/-

চিকিৎসা ভাতা (১,০০০ * ১২)                                                               = ১২,০০০/-

বাদ মূল বেতনের ১০% অথবা বার্ষিক ৬০,০০০/- যেটি কম                              ২৪,০০০/-                                 শূন্য

 

যানবাহন ব্যবহারের জন্য অনুমিত আয়ঃ (মূল বেতনের ৫%) (২,৪০,০০০/- * ৫%) =                                    ১২,০০০/-

বেতন খাতে আয় =                                                                                                                               ২,৭৬,০০০/-

মোট আয় =                              ২,৭৬,০০০/-

করদায় পরিগণনা

প্রথম ২,৭৫,০০০/- টাকা পর্যন্ত                         শূন্য

পরবর্তী ১,০০০/- টাকা পর্যন্ত ১০% হারে          ১০০/-

প্রদেয় কর =     ১০০/- 

করদাতার প্রদেয় কর ১০০/- টাকা হলেও তার করমুক্ত অতিরিক্ত আয় থাকায় এক্ষেত্রে করদাতার অবস্থান সিটি কর্পোরেশন এলাকায় হলে ন্যূনতম কর ৩,০০০/- টাকা, জেলা সদরের পৌরসভায় হলে ২,০০০/- টাকা এবং অন্যান্য এলাকায় হলে ১,০০০/- টাকা প্রদেয় হবে।

এছাড়াও করদাতার প্রভিডেন্ট ফান্ডটি অনুমোদিত না হওয়ায় ফান্ডে করদাতা ও নিয়োগকর্তার প্রদানকৃত চাঁদার জন্য কোন আয়কর রেয়াত প্রযোজ্য হবে না। নিয়োগকর্তার দান প্রতি বছরে আয়ের সংগে যোগ না হয়ে বরং উত্তোলনের সময় কর আরোপযোগ্য হবে।

করদাতার নীট সম্পদের পরিমাণ ১,৯০,০০,০০০/- টাকা যা সারচার্জ আরোপের লক্ষ্যে নীট সম্পদের সর্বোচ্চ সীমা ২ কোটি টাকার কম হওয়ায় প্রদেয় করের উপর কোন সারচার্জ আরোপিত হবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + eight =